নতুন প্রজন্মকে বিকশিত করতে হবে মুক্তিযুদ্ধের চেতনায়: বিভাগীয় কমিশনার

প্রকাশিত: ৯:০৮ অপরাহ্ণ, আগস্ট ৩১, ২০২১ | আপডেট: ৯:০৮:অপরাহ্ণ, আগস্ট ৩১, ২০২১

নিজস্ব প্রতিবেদক: সিলেটের বিভাগীয় কমিশনার মো. খলিলুর রহমান বলেছেন, হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙালি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্যেই স্বাধীন দেশের নাগরিক হিসাবে আমরা আজ আমাদের অনূভূতি প্রকাশ করতে পারছি।

নতুন প্রজন্মকে বঙ্গবন্ধু-মুক্তিযুদ্ধ-স্বাধীনতা সম্পর্কে সামগ্রিক ধারণা প্রদান করতে হবে, তাদেরকে বিকশিত করতে হবে মুক্তিযুদ্ধের চেতনায়।

আজকের বাংলাদেশের ডিজিটাল কার্যক্রমের বীজ অঙ্কুুরিত করেছিলেন বঙ্গবন্ধু বেতবুনিয়া ভূ-উপগ্রহ কেন্দ্র তৈরির মাধ্যমে। বঙ্গবন্ধুর স্বপ্ন পূরণে কাজ করে যাচ্ছেন বঙ্গবন্ধু কন্যা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। নির্বাচনী প্রতিশ্রুতি অনুযায়ী তিনি আমাদেরকে উপহার দিয়েছেন ডিজিটাল বাংলাদেশ।

জেলা পরিষদ, সিলেট এর আয়োজনে এবং জেলা প্রশাসন, সিলেট-এর সহযোগিতায় মাসব্যাপী অনলাইন ভিত্তিক সাংস্কৃতিক প্রতিযোগিতার পুরষ্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্য তিনি একথা বলেন।

স্বাধীনতার মহান স্থপতি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৬ তম শাহাদাত বার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে আজ (৩১ আগস্ট) সিলেট জেলা পরিষদ মিলনায়তনে আয়োজিত পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন সিলেটের জেলা প্রশাসক এম. কাজী এমদাদুল ইসলাম, সিলেট সরকারি মহিলা কলেজের অধ্যক্ষ প্রফেসর শামীমা চৌধুরী।

সিলেট জেলা পরিষদের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা দেবজিৎ সিংহ’র সভাপতিত্বে ও সিলেট জেলা শিল্পকলা একাডেমির জেলা কালচারাল অফিসার অসিত বরণ দাশ গুপ্ত-এর পরিচালনায় পুরস্কার বিতরণী অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন সাংস্কৃতিক প্রতিযোগিতা উপ-কমিটির পক্ষে সিলেট সম্মিলিত নাট্য পরিষদের সাধারণ সম্পাদক রজত কান্তি গুপ্ত, প্রতিযোগিদের মধ্য থেকে নাফিসা তানজিন, গাজী সাইফুল হাসান।

প্রধান অতিথিকে শুভেছা উপহার প্রদান করেন সিলেট জেলা পরিষদের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা দেবজিৎ সিংহ। অনুষ্ঠান শেষে প্রতিযোগিতায় বিজয়ীদের মধ্যে পুরস্কার বিতরণ করা হয় এবং সিলেট জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান এডভোকেট লুৎফুর রহমানসহ বিশ্ববাসীর সুস্থতা কামনা করে বিশেষ দোয়া পরিচালনা করেন সিলেট কালেক্টরেট জামে মসজিদের পেশ ইমাম হাফেজ মাওলানা মো: শাহ আলম।

সিলেটের বিভাগীয় কমিশনার মো. খলিলুর রহমান আরো বলেন বঙ্গবন্ধুর একদিকে সাংস্কৃতিক কর্মকান্ডের বিকাশে করেছেন শিল্পকলা একাডেমি, অন্যদিকে ইসলামিক ফাউন্ডেশন প্রতিষ্ঠার মাধ্যমে ইসলামের প্রতি তার দরদ ফুটে উঠেছে।

স্বাগত বক্তব্যে সিলেট জেলা পরিষদের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা দেবজিৎ সিংহ বলেন, নতুন প্রজন্মের কাছে জাতির পিতার আদর্শ উদ্দেশ্য তুলে ধরার জন্য জেলা পরিষদ সিলেট কাজ করছে। বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবার্ষিকী উপলক্ষে ইতিমধ্যে বিভিন্ন কর্মসূচী পালন করেছে। আমরা আমাদের অনুষ্ঠানের মাধ্যমে চেষ্টা করেছি নতুন প্রজন্মের অন্তরে মুক্তিযুদ্ধের চেতনা উজ্জিবিত করার।

উল্লেখ্য, অনলাইন প্লাটফর্মে আয়োজিত এ প্রতিযোগিতা ৬৭৫ জন প্রতিযোগী অংশগ্রহণ করে। চারটি বিভাগে আয়োজিত প্রতিযোগিতার বিভিন্ন বিষয়ের মধ্যে ছিলোÑচিত্রাংকন প্রতিযোগিতা, কবিতা আবৃত্তি প্রতিযোগিতা, সংগীত প্রতিযোগিতা, বঙ্গবন্ধুর অসমাপ্ত আত্মজীবনী থেকে পাঠ প্রতিযোগিতা।

বিজ্ঞাপন
Add Custom Banar 2
সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন।

Medical add